৭:৪১ পূর্বাহ্ন - শুক্রবার এপ্রিল ১৮, ২০১৪

নারীদের চুল পড়ার সমাধান

নারীদের চুল পড়া একটি অস্বস্তিকর সমস্যা। পুরুষদের যেভাবে টাক পড়ে সেভাবে চুল না ঝরে পড়লেও নারীদের চুল পাতলা হয়ে যাওয়ার প্রবণতা খুব বেশি। আমাদের সমাজে সুন্দর স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুল না হলে নারীদের সুন্দরী বা সুশ্রী বলা মুশকিল। অল্প বয়সে চুল না ঝরে পড়লেও বয়স বাড়ার সাথে সাথে চুল পড়ে যাওয়ার সম্মুখীন হন নারীরা। নানা কারণে মেয়েদের চুল পড়তে পারে-

হরমোন

হরমোনের তারতম্যের কারণে চুল পড়া একটি প্রধান সমস্যা। হাইরয়েড হরমোনোর তারতম্যের কারণে চুল পড়ে। এ ছাড়া ইস্ট্রোজেনের কারণেও চুল পড়তে পারে। তবে হরমোনজনিত সমস্যায় চিকিৎসা করালে চুল পড়া বন্ধ হয়।

সন্তান জন্মদান

সন্তান জন্মদানের পর তিন মাস নারীদের প্রচুর চুল পড়তে পারে। এটিও হরমোনোর কারণেই হয়ে থাকে। তবে প্রাকৃতিকভাবেই হরমোন সঠিক মাত্রায় চলে আসার পর চুল পড়া বন্ধ হয়ে যায়। তবে খুব বেশি চুল পড়ে পাতলা হয়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া প্রয়োজন।

রজঃনিবৃত্তি

মাসিক বন্ধ হওয়ার পরে মহিলারা চুলের সমস্যা নিয়ে বেশি ভোগেন। এ সময় ৩৭ শতাংশ মহিলার চুল বেশি মাত্রায় ঝরে পড়ে। এ ছাড়া হরমোন থেরাপি নেয়ার কারণেও চুল পড়তে পারে।

নানা ধরনের অসুস্থতা বা অসুস্থতার পরেও চুল ঝরে পড়া সমস্যা হতে পারে। তবে যে কারণেই চুল ঝরে পড়ুক তার চিকিৎসা করা প্রয়োজন। কেননা এতে সৌন্দর্যহানী ঘটে যা খুবই বিরক্তিকর। মহিলাদের ক্ষেত্রে অনেক সময় চুলের নানা ফ্যাশন যেমন- রিবন্ডিং, স্টেইট, পার্ম, ডাই, ব্লোয়ার ড্রাই ইত্যাদি করার কারণে চুল ঝরে পড়তে পারে।

এ ব্যাপারে সতর্ক থাকা প্রয়োজন। এ ছাড়া অনেকে নিজে থেকে ওজন কমানোর জন্য কম খান কিংবা পুষ্টিকর খাবার খান না। এতে করেও চুলের ক্ষতি হয়। ওজন কমাতে নিজে নিজে খাওয়া বন্ধ না করে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। চুল পড়া হলে অবশ্যই এর কারণ অনুযায়ী চিকিৎসা করা প্রয়োজন।

ভোট দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ! এখন সবাইকে জানিয়ে দিন আপনার অনুভূতি
পোস্টটি আপনার কেমন লেগেছে?
  • চমৎকার
  • খুব ভালো
  • ভালো
  • মোটামুটি
  • খারাপ
  • খুব খারাপ
পোস্টটির বিভাগ - হেলথ টিপস

মন্তব্য করুন

*